আল্লাহ্ এর রহমতে মোহাম্মাদ কাসীম এর বাতাসে দৌড়ানো এবং শান্তিপূর্ণ জায়গার অনুসন্ধান

Muhammad Qasim's dreams in Bangla
Post Reply
Hisham Mahdi
Posts: 83
Joined: Thu May 31, 2018 11:45 am

আল্লাহ্ এর রহমতে মোহাম্মাদ কাসীম এর বাতাসে দৌড়ানো এবং শান্তিপূর্ণ জায়গার অনুসন্ধান

Post by Hisham Mahdi » Sat Jun 09, 2018 11:23 am

আস্‘সালামু আলাইকুম। এটি মোহাম্মাদ কাসীম এর একটি রহমানী স্বপ্ন। কাসীম বলেন, ৩০ নভেম্বর ২০১৭ এর একটি স্বপ্নে আমি দেখেছি যে, আমি আমার শহরে ছিলাম এবং শহরের অবস্থা ভালো ছিলোনা। সেখানে মানুষের মধ্যে বিশৃঙ্খলা আর অস্থিরতা ছিলো। প্রত্যেক ব্যক্তিই কিছু সমস্যায় জর্জরিত ছিলো এবং ক্ষমতাসীন ব্যক্তিরা শুধুমাত্র নিজেদেরকে নিয়ে যত্নবান ছিলো। আমি আমার বাড়ির ছাদ থেকে এসব দেখছিলাম এবং বলেছিলাম যে, এই হচ্ছে রাষ্ট্র যার মধ্যে আমাদের বাস করতে হয় ? আমি তখনো তাকাচ্ছিলাম। আল্লাহ আকাশ থেকে বলছিলেন, কাসীম বেড়িয়ে যাও, সেখানে একটি শান্তিময় জায়গা আছে, যেখানে আমার কল্যাণ এবং রহমত আছে। এটি খোঁজো, সেখানে প্রত্যেক প্রকার শান্তি আছে। আমি খুবই খুশি হয়েছিলাম যে, আল্লাহ আমাকে পথ দেখিয়েছিলেন। আমি বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যাই এবং সেই জায়গাটি খুঁজতে থাকি কিন্তু আমি সেটা খুঁজে পাইনি। আমি কিছু লোকের সাথে মিলিত হয়েছিলাম এবং তাদের বলেছিলাম যে, এখানে কিছু শান্তিময় জায়গা আছে এবং আমাদের এটি খোঁজা উচিত। আমি কোনো রাস্তা পাচ্ছিলামনা শহর থেকে বের হওয়ার জন্য যাতে আমি বের হতে পারি এবং ওই জায়গাটি খুঁজতে পারি। আমি কিছু বড় লোকের কাছে গিয়েছিলাম এবং তাদের বলেছিলাম কিন্তু তারা আমাকে বিশ্বাস করেনি এবং তারা বলেছিলো এরকম কোন জায়গা এখানে নেই, অকারনে তোমার সময় নষ্ট করোনা। তারপর অবশেষে, আমি একটি জায়গায় পোঁছাই যেখানে একটি বড় বিল্ডিং ছিলো এবং আমি বলেছিলাম, আমার এই বিল্ডিং এর ছাদে যাওয়া উচিত এবং জায়গাটি খোঁজার চেষ্টা করা উচিত। আমি ছাদে গিয়েছিলাম এবং সেখান থেকে তাকিয়েছিলাম কিন্তু আমি শুধু আমার নিজের শহর দেখতে পেয়েছিলাম এবং অন্যকোন জায়গা খুঁজে পাইনি। তারপর আমি বলেছিলাম যে, এটি একই বিল্ডিং ? যেটা আমি আমার স্বপ্নে প্রায়ই দেখতাম যে, আমি একটি বড় বিল্ডিং এ গিয়েছিলাম এবং সেখান থেকে লাফ দিয়েছিলাম এবং আল্লাহ আমাকে তার রহমতে নেন। তারপর আমি বাতাসে দৌড়ানো শুরু করি। আমি বলেছিলাম যে, যদি আমি ওই জায়গাটি খুঁজতে চাই তাহলে আমার লাফ দেয়া উচিৎ। আমি লাফ দেয়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করলাম। আমি পিছনে ফিরে দৌড়ালাম এবং লাফ দিলাম এবং পড়ে যাওয়ার পরিবর্তে আমি বাতাসে উড়া শুরু করেছিলাম। আমি বলেছিলাম যে, আল্লাহ আমাকে সত্যই নিয়েছেন, আমি খুব দ্রুত দৌড়াচ্ছিলাম এবং অনেক দূরে বাতাসে। এমনকি আমি শহরের বাইরে চলে গিয়েছিলাম কিন্তু আমি শুধু শহরের বাইরের পরিত্যাক্ত এলাকাসমূহ খুঁজে পেয়েছিলাম। আমি দৌড়ানো অব্যাহত রাখি কিন্তু আমি কোন জায়গা খুঁজে পাইনি যেটা শান্তিপূর্ণ এবং আল্লাহর রহমত ছিলো। আমি ক্লান্ত এবং হতাশ হয়ে গিয়েছিলাম, তারপর আমি আমার বাড়িতে ফিরে আসি এবং ভাবতে থাকি যে, কিভাবে আমি খুব কঠিন সাধনা করব কিন্তু এখনো কিছুই খুঁজে পাইনি, এবং না কিছু বড় মানুষ আমাকে বিশ্বাস করেছিলো, অন্যদিকে আমাদের ওই জায়গাটি খুঁজে বের করতে হবে। তারপর আমি বলেছিলাম যে, মনে হয় ওই লোকগুলোই সঠিক ছিলো যে, যারা বলেছিল, এখানে এমন কোন জায়গা নেই, তোমার সময় নষ্ট করোনা। আমি আমার কাজে ব্যস্ত ছিলাম যখন আল্লাহ আমাকে আবারো বলেছিলেন যে, কাসীম বেড়িয়ে যাও এবং ওই জায়গাটি খোঁজো। দৌড়ানো অব্যাহত রাখো যতক্ষণ পর্যন্ত জায়গাটি খুঁজে না পাও এবং আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হইওনা। আল্লাহর থেকে শোনার পর আমি বলেছিলাম যে, পূর্বে আমি সব উপায়েই ক্লান্ত হয়েছিলাম। না বড় মানুষেরা আমাকে বিশ্বাস করেছিল আর না আমি জায়গাটি খুঁজে পেয়েছিলাম। কাজটি আবার করা অহেতুক। তারপর আমি বলেছিলাম যে, এই অন্ধকারে থাকার চেয়ে ওই জায়গাটি খোঁজা উত্তম। মনে হয় আমি এটা খুঁজে পেতে পারি। তারপর আমি বের হয়েছিলাম এবং ওই বিল্ডিং এ পৌঁছে গিয়েছিলাম। চারপাশে তাকিয়ে আমি ভাবছিলাম যে, আমার কোথায় যাওয়া উচিৎ। তারপর আমি বলেছিলাম যে, আমার খুব উঁচুতে যাওয়া উচিত যতটা আমি পারি এবং সেখান থেকে আমার জায়গা টি খুঁজে বের করা উচিৎ। আমি আবারো লাফ দিলাম এবং বাতাসে এত উঁচুতে উঠলাম যতটা পেরেছিলাম। আমি সব দিকেই তাকিয়েছিলাম কিন্তু ওই জায়গাটি খুঁজে পাইনি। আমি বলেছিলাম যে, আমি জায়গাটি খুঁজে পাবো না। তারপর আমি বলেছিলাম যে, আমি এখন খুব উঁচুতে, আমার অন্তত চেষ্টা করা উচিৎ। তারপর আমি বলেছিলাম যে, প্রথমে আমি উত্তরে গিয়েছিলাম, এই সময় আমার পুর্বে যাওয়া উচিৎ। তারপর আমি একটু নেমে এসেছিলাম এবং পূর্ব দিকে দেখেছিলাম এবং ওই অভিমুখে দৌড়ানো শুরু করেছিলাম। ঐসব বড় মানুষগুলো যারা আমাকে বিশ্বাস করেনি, তারাও আমাকে দৌড়াতে দেখছিলো। যখন আমি শহর থেকে বের হতে যাচ্ছিলাম তখন সেখানে বাতাসে কিছু কোলাহল ছিলো এবং আমি সেখানে অল্প একটু ধীরগতি হয়েছিলাম কিন্তু আল্লাহ আমাকে সেখান থেকে খুব সুন্দরভাবে নিয়েছিলেন, কোলাহলময় এলাকা শুরু হয়েছিলো এবং আমি খুব দ্রত দৌড়ানো অব্যাহত রেখেছিলাম এবং আমি থামছিলাম না। কিন্তু অনেক দূরত্বে যাওয়ার পরে আমি ধারনক্ষমতাহীন হয়ে যাচ্ছিলাম এবং বলেছিলাম যে, আমি ওই জায়গাটি খুঁজতে যাচ্ছিলাম না। কিন্তু তারপর আল্লাহ বলেছিলেন যে, দৌড়ানো অব্যাহত রাখো যতক্ষণ পর্যন্ত জায়গাটি খুঁজে না পাও। আমি উড়া অব্যাহত রাখি এবং হঠাত আমি কিছু শ্যামলিমা দেখা শুরু করেছিলাম এবং যখন আমি এটার কাছে গিয়েছিলাম তারপর আমি বলেছিলাম যে, এই হচ্ছে সেই জায়গা যেটা আমি খুঁজে বের করার চেষ্টা করছিলাম। অবশেষে, আমি জায়গাটি খুঁজে পেলাম। আল্লাহ সত্য বলেছিলেন যে জায়গাটি খুব শান্তিপূর্ণ, এটা শ্যামলিমায় ভরা। আমি জায়গাটি খুঁজে পেয়ে খুবই খুশি হয়েছিলাম, তারপর আমি বলেছিলাম যে, আমার পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে সেখানে যাওয়া উচিত। এটা একটি নতুন জায়গা এবং এটি শান্তিপূর্ণও। মনে হয় আমি সম্ভবত আমার পুরোনো বাড়িতে আর যেতে পারবো না। তারপর আমি ফিরে আসি এবং কিছু চিহ্ন পেশ করি যাতে পরবর্তীতে এই জায়গাটি আবার খুঁজে পেতে আমার কোন সমস্যা না থাকে। ফিরে আসার পর আমি আমার ভ্রমনের মালপত্র গোছাই এবং তারপর আমি বের হই সেই জায়গায় যাওয়ার জন্য। কিন্তু পথিমধ্যে আমি দুইজন লোকের সাথে মিলিত হই যাদের সাথে আমি আগেও মিলিত হয়েছিলাম এবং তারা আমাকে বিশ্বাস ও করেছিলো এবং ওই লোকগুলোও সেই জায়গাটি খুঁজছিলো। আমি তাদেরকে পুরো কাহিনী বলেছিলাম এবং বললাম যে, আমি ওই জায়গাটি খুঁজে পেয়েছি এবং তারা খুবই খুশি হয়েছিলো। তারা বলেছিলো যে, আমাদেরকেও আপনার সাথে নিয়ে চলেন। আমি বলেছিলাম অবশ্যই, আপনারাও আমাকে ধরুন এবং যখন আমি আল্লাহর রহমতে বাতাসে দৌড়াবো তখন আপনারাও দৌড়াতে সক্ষম হবেন এবং পড়ে যাবেন না। তারপর আমরা সেই জায়গার দিকে বের হয়েছিলাম। আমরা শুধু একটু দূরত্বে গিয়েছিলাম তখন একজন লোকের হাত পিছলে গিয়েছিলো এবং পড়ে যেতে শুরু করেছিলো, কিন্তু আমি তাকে অকস্মাৎ আঁকড়ে ধরেছিলাম। আমি বলেছিলাম যে, এটি বিপদজনক এবং আমাদের একটি উড়ন্ত যন্ত্র তৈরি করা উচিৎ যাতে কেউ পড়ে না যায়। তারপর আল্লাহর রহমতে আমি একটি উড়ন্ত যন্ত্র তৈরি করেছিলাম এবং আমরা সহজেই এর মধ্যে বসেছিলাম। যখন আমরা উড়া শুরু করেছিলাম তারপর কিছু অন্য লোক দেখার পর আমাকে ডেকেছিলো যে, আমাদেরকেও তোমার সাথে নাও। যখন আমি আবার নিচে নামি তখন এই লোকগুলো তারাই যাদের সাথে আমি প্রথমবার মিলিত হয়েছিলাম। আমি তাদেরকেও সবকিছু বলি, তারাও খুব খুশি হয় এবং বলে আমাদেরকেও আপনার সাথে নেন। আমি বলেছিলাম অবশ্যই। তারপর আমি উড়ন্ত যন্ত্রের আকার বৃদ্ধি করেছিলাম এবং এটা একটা বড় গাড়ীর মত উড়ন্ত যন্ত্র হয়েছিলো এবং আমরা সবাই এর মধ্যে বসেছিলাম। আমি সবার দিকে তাকালাম এবং বললাম যদি এখানে কেউ অনুপস্থিত থাকে যারা আমার সাথে প্রথমবার মিলিত হয়েছিলো এবং যারা আমাকে সাহায্যও করেছিলো। আমি সন্তুষ্ট ছিলাম। তারপর আমি জানিনা কেন আমি অলস হয়ে গিয়েছিলাম এবং চিন্তা শুরু করেছিলাম যে এই ভ্রমণ টা দীর্ঘ এবং যদি আমরা একবার সেখানে যাই তাহলে আমরা আর ফিরে আসতে সক্ষম হবোনা। তারপর আমি বলেছিলাম যে, আল্লাহ সবকিছু করেছেন, এখন আমার শুধু যন্ত্রটা উড়াতে হবে এবং এটিকে ওই জায়গার অভিমুখে নিতে হবে। তারপর আল্লাহ এই যন্ত্রটিকে ওই জায়গায় পৌঁছে দিবেন এবং পাশাপাশি আমরা কি করতে যাচ্ছি এই অন্ধকার জায়গায় বাস করে, আমি আমার বাড়ির দিকে তাকিয়েছিলাম এবং তারপর আমি আমার আসনে বসি এবং উড়া শুরু করি ঐ জায়গার অভিমুখে। তারপর স্বপ্ন শেষ হয়। দয়াকরে এই স্বপ্নগুলো অন্যদের সাথে শেয়ার করুন এবং আমার অন্যান্য স্বপ্নগুলো সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে দয়াকরে আমাদের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে এ দেখুন। জাযাকাল্লাহু খাইরান।
لا اله الا الله، محمد رسول الله

Post Reply